বাস্তব, অবাস্তব ও জটিল সংখ্যা

বাস্তব সংখ্যা

ছোট্টবেলা থেকে তোমরা যে ১,২,৩ করে গুনতে শিখেছো \(\mathbb{Z}=\{\dots,-1,0,1,2,3,\dots\}\) , একটু বড় হয়ে দশমিক ও ভগ্নাংশ শিখেছো \(\mathbb{Q}=\{\dots,-\dfrac{1}{2},\dfrac{3}{4},\dots\}\), আবার \(\pi,e,\sqrt{2},\sqrt[3]{5}\) ইত্যাদি নিয়েও হিসেব করা শিখেছো। ওগুলি সবগুলিই বাস্তব সংখ্যা।

অবাস্তব সংখ্যা

যদি তোমাকে বলা হয় একটি ঋণাত্মক সংখ্যার বর্গমূল বের করতে, তাহলে কি হবে? ঋণাত্মক সংখ্যার বর্গমূল নিলে আমরা অবাস্তব সংখ্যা পাবো। এই অবাস্তব সংখ্যাকে আমরা \(i\) এই \(i\) গ্রীক বর্ণমালা থেকে এসেছে। একে iota বলা হয়। দিয়ে প্রকাশ করি এবং \(i=\sqrt{-1}\)। তাহলে \(\sqrt{-5}=i\sqrt{5},\sqrt{-25}=5i\) ইত্যাদি।

জটিল সংখ্যা

কিছু কিছু সংখ্যার বাস্তব এবং অবাস্তব দুটি অংশই থাকে। এদেরকে জটিল সংখ্যা বলা হয়। যেমনঃ \(2+3i\) এর কথাই চিন্তা করো। এখানে \(2\) হলো বাস্তব আর \(3i\) অবাস্তব সংখ্যা। আর \(2+3i\) হলো একটি জটিল সংখ্যা। জটিল সংখ্যার হিসেব একটু আলাদা। সাধারনভাবে জটিল সংখ্যাকে \(z=x+iy\) এভাবে প্রকাশ করা হয়; যেখানে \(x\) সংখ্যাটির বাস্তব অংশ এবং \(iy\) সংখ্যাটির অবাস্তব অংশ বোঝায়।
বাস্তব, অবাস্তব ও জটিল সংখ্যা বাস্তব, অবাস্তব ও জটিল সংখ্যা Reviewed by Dayeen on ফেব্রুয়ারী ২৬, ২০২০ Rating: 5
Blogger দ্বারা পরিচালিত.